June 7, 2020

আমি নিজে রাষ্ট্র নামের প্রপঞ্চরে পছন্দ করি না, মাইনা নেই। কিন্তু কামের সময় রাষ্ট্ররে আপনি খুইজ্জা পাইবেন না। যেমন ধরেন, আপনারে কেউ মারলে আপনি তারে তরোয়াল নিয়া পাল্টা মাইর দিবার যান না, এইডা আপনার লগে রাষ্ট্রের চুক্তি। তাই আপনি তরোয়াল নিয়া ছুটেন না। রাষ্ট্র আপনার ওই তরোয়াল নিয়া ছুটনের অভিপ্রায় জব্দ করছে। রাষ্ট্র কইছে ওইডা আমি করুম, তোমার চাইতে ভালোভাবে করুম। আপনার মতন এমন সকল নাগরিকের সার্বভৌম অধিকার রাষ্ট্র নিয়া, রাষ্ট্র শক্তিমান হইছে।

তো, এই রাষ্ট্রের কাছে রাস্তায় নাইমা বিচার চাইতে হয় ক্যান? রাষ্ট্র কি ঘুমায়? নিরাপত্তা চাইতে হয় ক্যান? তুমি আমার মুখের ভাত দিবা, পরনের কাপড় দিবা, মাথার উপরে ছাদ দিবা, শিক্ষা দিবা, অসুখে চিকিৎসা দিবা। এইগুলান তো তুমার ডেইলি রুটিন। এইডা তুমার লগে আমার চুক্তি, তুমি হেইডা মাইনা নিছো। ঠিক কিনা? এইডা তুমি কইছো না সংবিধানে? এই রুটিন কামডা তুমি করনা ক্যান? এইডা তো তুমি করবা না।

তুমি করবা কোনটা? তুমি পিটাইবা। লাঠি, বন্দুক, কামান নিয়া তুমি ঝাপাইয়া পরবা আমারই উপর। এইহানে শুধু রাষ্ট্র না, রাষ্ট্রের বাপ-দাদা, চৌদ্দগুষ্ঠি বর্তমান। আপনারে তহন রাষ্ট্ররে খুইজ্জা নিতে হইবো না, রাষ্ট্রই আপনারে খুইজ্জা নিবো।

তুমার লজ্জা লাগে না? তুমি বুঝো না, ওই লাঠি আর বন্দুক আমারই শক্তি, ওইডা আমিই তুমারে দিছি। ওইডা আমার মতো সকল নাগরিকের সম্মিলিত শক্তি, তুমি জিম্মাদার মাত্র। আর তুমি ভাব দেখাও তুমি আমার প্রভু লাগো!!!

লেখাটির ফেইসবুক ভার্সন পড়তে চাইলে এইখানে ক্লিক করুন

Add comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *