Want to get latest blog from Pinaki Bhattacharya?
We will send you emails!
Subscribe!

Actually we will not spam you and keep your personal data secure

July 11, 2020

This photo will continue to be identified as an iconic image of Sheikh Hasina’s misrule in Bangladesh. Ayub Ali from Rangunia was suffering from shortness of breath. His wife took him to two private hospitals, but they refused to treat him. The helpless wife brought Ali to Chittagong Medical College Hospital (CMCH). By the time the man was admitted to the hospital, doctors declared that he was dead.

Sheikh Hasina has not ensured a minimum health care service for the citizens of Bangladesh. But, she has kept the arrangement in place for her party’s looters to be brought to the Combined Military Hospital in Dhaka even by helicopter, for their medical treatment. Last month, the government announced that Sheikh Russel Gastro Liver Institute and Hospital in Dhaka was dedicated to the treatment of coronavirus patients. Since it is a government hospital all citizens of the country are to be treated at this facility. But for unknown reasons, ordinary COVID patients have no access to this hospital now. It is overheard, the hospital has been kept reserved only for those who are very close to Hasina.

This shameless fascist ruler kept herself busy lighting firecrackers and celebrating the birth centenary of her father Sheikh Mujib, while the country turned into a killing field for helpless ordinary people. Like Ali, many people in the country are dying painful deaths after being denied a minimum health care service.

Click here to read the original Facebook post

এই ছবিটা হাসিনার দুঃশাসনের চিত্র হয়ে থাকবে। দুটি বেসরকারি হাসপাতাল ঘুরেও ভর্তি করাতে পারেননি তীব্রশ্বাস কষ্ট নিয়ে রাঙ্গুনিয়া থেকে আসা আইয়ুব আলীকে। অসহায় স্ত্রী তাকে নিয়ে চমেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগের সামনে অপেক্ষা করেন ভর্তি করানোর জন্য। ভর্তির পর পরীক্ষা করে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশের নাগরিকের ন্যূনতম স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত না করে হাসিনা তার দলের লুটেরাদের ঢাকার সি এম এইচে প্রয়োজনে হেলিকপ্টারে উড়িয়ে এনে চিকিৎসা দেওয়াচ্ছে। গত মাসে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রো লিভার ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হসপিটালকে কোভিড ডেডিকেটেড একটা হাসপাতাল হিসাবে তৈরী করা হয়েছে ঘোষণা দেয়া হয়। এই সরকারী হাসপাতালে সবারই চিকিত্সা পাওয়ার কথা। কিন্তু অজানা কারণে সেই হাসপাতালে কোন সাধারণ কোভিড রোগীই ভর্তি করা হচ্ছেনা। শোনা যাচ্ছে, সেই হাসপাতাল শেখ হাসিনার অতি ঘনিষ্ঠদের জন্য রিজার্ভ করে রাখা হয়েছে।

সারা দেশের মানুষকে বধ্যভূমির সামনে দাঁড় করিয়ে এই নির্লজ্জ ফ্যাসিস্ট শাসক বাজি ফুটিয়ে পাবলিক মানি খরচ করে নিজের পিতার জন্মশতবর্ষ পালন করেছে। আর নাগরিকেরা অন্তিম মুহূর্তে ন্যূনতম চিকিৎসাসেবা না পেয়ে এভাবেই আইয়ুব আলীর মত পথে মৃত্যুবরণ করছে।

লেখাটির ফেইসবুক ভার্সন পড়তে চাইলে এইখানে ক্লিক করুন

Add comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *