Ruling party leaders enjoy more impunity in Bangladesh

The rule of law has virtually disappeared from Bangladesh. That is why an elected representative can openly torture a 14-year-old boy for allegedly stealing a fowl.

For beating up someone in this style one should face criminal suit. But police took no action in the case against the ruling party leader. The leader even proudly said he took the perfect way to deliver justice in the case. Those who are powerful are running such kangaroo courts across the country.

Click here to read the original Facebook post

বাংলাদেশে আইনের শাসন নেই; সে জন্যই একজন কিশোরকে একজন জনপ্রতিনিধি মুরগী চুরির অভিযোগে প্রকাশ্যে এমন বর্বরভাবে নির্যাতন করতে পারে।

এমন ভাবে নির্যাতন করার অপরাধে নির্যাতককে ফৌজদারি মামলায় আদালতে তোলা উচিত হলেও পুলিশ তেমন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি এ ক্ষেত্রে। শুধু তাই নয়, সেই জনপ্রতিনিধি আবার গর্বভরে বলেছে কঠিন বিচার করতে হলে এমন মারধর করতেই হয়। সারা দেশেই ক্ষমতাবানদের কর্তৃত্বে এমন অনেক প্রাইভেট বিচারালয় বা ক্যাঙ্গারু কোর্ট চলছে।

লেখাটির ফেইসবুক ভার্সন পড়তে চাইলে এইখানে ক্লিক করুন

Share

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Feeling social? comment with facebook here!

Subscribe to
Newsletter